ভালোবাসার বৈচিত্রতা

ভালোবাসার বৈচিত্রতা

স্নান করে এসে প্রায় ভিজে গায়ে শুয়ে পড়ল সুমন। যা গরম পড়েছে তাতে কিছুই যেন ইচ্ছে করছে না। চির বিড় করছে সারাটা শরীর। মনে হয় শুধু শরীরটা নয় সাথে মনটাও।বারবার মনের ছিদ্র দিয়ে একটাই কথা বেরিয়ে আসছে প্রিয়া এতটা অপমান না করলেও পারত এবার। অনেক বাড়িত অসম্মান করেছে কিন্তু এইবার মাত্রাতিরিক্ত।

বলিহারি যাই সুমনের ও প্রথমবারতো নয় বেশ কয়েকবার হলো ক্ষ্যান্ত দে বাবা এবার.... সীতা, মিতা, গীতা কমে তো নেই কেন রে বাবা প্রিয়ার কি এমন রূপের ছটা যে যাতে তুই এত আলোকিত?

উহু নানা সুমন এবার বলবে "না না আমি রুপে নয়, গুনেও নয়..... জানিনা কি কারনে এত পাগল"

আরে আমি কিন্তু পাগল হতে বারণ করিনি।হও না যত খুশি পাগল কিন্তু বারংবার ছ্যাকা খেয়ে এসে বিছানাকে নিজের জগত বানিয়ে ফেলেছ কেন? প্রেমে ছ্যাকা খেয়ে পড়ে যাওয়াটা তো এতদিনে অভ্যাস হয়ে যাওয়ার কথা।প্রেমে পাগল যদি হতেই হয় সোনা তাহলে সেরাম লেভেলের পাগল হো যাতে তোমাকে নিয়ে ইতিহাস না হোক তোমাকে দেখে ইয়ং জেনারেশনের কিছুটা সাহিত্যরস আর সত্যি কারের প্রেম বোধ জন্মায়।

প্রেমে তো বাধা আসবেই... তুমি নতুন নও, রোমিও জুলিয়েট, লায়লা মজনু সবারই এসেছিল আর তারা ম্যাজিশিয়ান না হয়ে ও বাধা কাটিয়ে এগিয়ে ছিল তাই কাকা ওরা আজ ইতিহাসে.... আর তুমি প্রেমে সামান্য মোমবাতির ছেকায়‌ লেদ খেয়ে বিছানায়?

হয় প্রিয়াকে ভুলে নতুন কে আহবান করো আর না হয় জাগো প্রেমিক জাগো.... ছ্যাক খেয়ে পোড়া জায়গায় নতুন করে মলম লাগিয়ে ধর তক্তা মার পেরেক এর প্রেমে লেগে যাও। এগিয়ে যাও এগিয়ে যাও.... পারলে না খেয়ে অনশন করো, দরকার হলে ধরনায় বস... গ্লুকোন ডি খেয়ে এনার্জি বাড়িয়ে চালিয়ে যাও চালিয়ে যাও... হোয়াটসঅ্যাপ ফেসবুক যত সোশ্যাল সাইট আছে সবকিছুতে বিরহের স্ট্যাটাস দাও... আরে কাকা এতে ভালোবাসা আদায় না করতে পারলেও প্রিয়ার মনে তোমার জন্য একটু করুণা বোধ তো তৈরি হবেই।

যাক অনেক হল এবার আসি প্রিয়া নামক মেয়েটির কথায় -এটা জানি একটুও পছন্দ হবেনা তোমার কিন্তু ওর কথা ও তো একটু ভাবা দরকার। এবার কথাটা একটু বিপরীতমুখী, নানা একটু নয় বেশ কিছুটা বিপরীতমুখী। রেগে যেও না প্লিজ.... রেগে গেলেও করার কিছু নেই আমি তো কাকা সত্যিটা বলবোই। একবার ভাবো এতবার বলার পরও যখন মেয়েটি বারবার তোমার প্রপোজাল নাকচ করছে, বাধ্য হয়ে অসম্মান, অবজ্ঞা ছুঁড়ে দিচ্ছে নিশ্চয়ই তাহলে ওর কিছু অসুবিধা বা অপছন্দ বা অন্য ভাললাগার জায়গা থাকতে পারে।গণতান্ত্রিক দেশ ভাই আমাদের প্রত্যেকেরই বাক স্বাধীনতা আছে আর ভালোবাসার স্বাধীনতা থাকবে না? ভেবে দেখো একটু....

আমি কিন্তু তোমাকে ভালোবাসতে বারণ করছি না। ভালবাসাটাই যদি একমাত্র উদ্দেশ্য হয়, তাহলে ভালোবাসো... খুব ভালবাসো..কিন্তু দূর থেকে ভালোবাসো।ভালবাসার পরিবর্তে যদি ভালোবাসাটাই দাবি করো সেটা তো তাহলে স্বার্থপরতা হয়ে গেল ভাই।তাহলে ভালবাসার মত ও মহৎ কাজের নিঃস্বার্থতা কোথায়...?